Warning: count(): Parameter must be an array or an object that implements Countable in /homepages/19/d650279470/htdocs/app653499953/wp-includes/post-template.php on line 284

Warning: count(): Parameter must be an array or an object that implements Countable in /homepages/19/d650279470/htdocs/app653499953/wp-includes/post-template.php on line 284

Warning: count(): Parameter must be an array or an object that implements Countable in /homepages/19/d650279470/htdocs/app653499953/wp-includes/post-template.php on line 284

Warning: count(): Parameter must be an array or an object that implements Countable in /homepages/19/d650279470/htdocs/app653499953/wp-includes/post-template.php on line 284

«

»

ফেব্রু. 18

দাবা লেকচার ১৪,১ – খেলার মধ্যভাগঃ ঘুটির বিকাশ ও গ্যামবিট

আমরা এতদিনে আগের দুটো লেকচারে খেলার মধ্যভাগের কিছু স্বল্পমেয়াদী পরিকল্পনা (short term plan – using tactics to win material ) ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা (long term plan – strategy: gaining space and better structure) নিয়ে কথা বলেছি। এবার আমরা আর একটা খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে কথা বলবো। তা হলো ঘুটির বিকাশ (development)।

প্রতিপক্ষের চেয়ে ভালো বিকশিত ঘুটি থাকলে খেলায় আপনার অবস্থান ভালো। আপনার ঘুটি প্রতিপক্ষের ঘুটির চেয়ে ভালো বিকশিত (better developed pieces = better quality of material) থাকা সবসময় সুবিধাজনক। তাই আপনার ঘুটি সবসময় ভালো অবস্থানে বিকশিত করার চেষ্টা করুন, আর প্রতিপক্ষ যাতে খুব সহজে তা করতে না পারে সেদিকে নজর দিন।

আর একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ঘুটির বিকাশের গতি। আপনি যত দ্রুত ঘুটির বিকাশ করতে পারবেন তত ভালো। আপনি যদি ঘুটির বিকাশে প্রতিপক্ষের চেয়ে অনেকটা এগিয়ে থাকেন (big lead in development) তাহলে আপনার সুবিধা। এবং প্রতিপক্ষ সতর্ক না হলে অনেক সময়েই ঘুটির বিকাশে এগিয়ে থাকার ফলে সহজেই খেলা জিতে নেওয়া যায়। ঘুটির বিকাশে এগিয়ে থাকা কে দাবার ভাষায় কখনও কখনো সময় (time/tempi) বলা হয়ে থাকে। বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ এখানে time/tempi শব্দ টি দাবার ঘড়ির সময় বোঝাতে ব্যবহার করা হয়নি।

অনেক সময় দাবাড়ুরা বলেন, প্রথম খেলোয়াড় দ্বিতীয় খেলোয়াড়ের চেয়ে ঘুটির বিকাশে এত বেশি এগিয়ে ছিলো যে প্রথম খেলোয়াড় যখন একটা মারাত্মক শক্তিশালী আক্রমণ করেছে তখন দ্বিতীয় খেলোয়াড়ের রক্ষণের যথেষ্ট সময় নেই। অর্থাৎ, ঘুটির বিকাশে পিছিয়ে থাকা খেলোয়াড় যদি একসাথে একটার বেশি চাল দিতে পারতো তাহলে হয়তো আক্রমণ প্রতিহত করতে সফল হতো, কিন্তু দাবায় একবারে একটার বেশি চালের নিয়ম নেই। তাই দ্বিতীয় খেলোয়াড় রক্ষণে অসফল হয়েছে।

উপরের সমস্ত বিষয়টাই একদম বিমূর্ত ধারণা (abstract concept)। এই পুরো ব্যাপারটাকে বিশ্বের সর্বকালের একজন অন্যতম শ্রেষ্ঠ খেলোয়াড় গ্যারি কাসপারভ খুব সুন্দরভাবে ব্যখ্যা করেছেন। কাসপারভের মতে, যে কোন অবস্থানে ঘুটির পরিমাপ করার সময় তিনটি জিনিসের প্রতি খুব জোর দেওয়া উচিত। যথা

  1. ঘুটির পরিমাপ (material) – ১,৩,৩,৫,৯ সিস্টেম কাজে লাগিয়ে মোট পয়েন্ট গণনা করুন। ( লেকচার ৭ )
  2. ঘুটির গুণগত মান (quality of material), আপনার বিকশিত ঘুটির সাথে প্রতিপক্ষের বিকশিত ঘুটির গুণগত তুলনা করুন এবং
  3. সময় (time/tempi) – আপনি ঘুটির বিকাশে কতটা এগিয়ে/পিছিয়ে আছেন তা বিচার করার চেষ্টা করুন।

এখানে দ্রষ্টব্য, আপনি উপরের তিনটি জিনিসের একটা বিসর্জন দিয়ে অন্য কিছু পেতে পারেন। একজন কাঁচা খেলোয়াড়ের সাথে খেললে আপনি বিনামূল্যে তিনটিই পেতে পারেন, তবে একজন ভালো খেলোয়াড় আপনাকে বিনামূল্যে কিছু উপহার দেবে না। তাই একটা কিছু পাবার জন্য আপনাকে অন্য কিছু খোয়াতে হয়। কতটা খোয়ালে কতটা পাবেন এর উত্তর সহজ নয়। দাবাড়ুরা কয়েকশো বছর কাটিয়েও এইসব প্রশ্নের সহজ উত্তর খুঁজে পাননি। সুতরাং যারা নতুন খেলা শিখছেন তারা এখনই বিষয়টা খুব সহজে হয়তো বুঝতে পারবেন না। এখনকার জন্য বিষয়গুলো শুধু মাথায় রাখুন, তাহলেই হবে। এইসব বিমূর্ত ধারণা কাজে লাগিয়ে আপনার খেলায় কিভাবে উন্নতি করবেন তা নিচে কিছু উদাহরণ দিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করবো।

দাবাড়ুরা অনেক সময়েই ঘুটির গুণগত মান ও সময়ে এগিয়ে থাকার জন্য অনেক সময়েই অল্প পরিমাণ ঘুটি বিসর্জন দিয়ে থাকেন। বিশেষত অনেক রকম ওপেনিং এ খেলার শুরুর দিকে একটা বোড়ে বিসর্জন দেওয়া খুব বহুল প্রচলিত। এরকম ভাবে বোড়ে বিসর্জন দেওয়াকে বলা হয় গ্যামবিট ওপেনিং (gambit opening)।

এক্ষেত্রে যে খেলোয়াড় ঘুটি গ্যামবিট করেছে সে ঘুটির পরিমাপে একটু পিছিয়ে থাকবে, কিন্তু অন্য দিকে একটু এগিয়ে থাকবে। এবং আশা করবে ভবিষ্যতে ঘুটির পরিমাপের চেয়ে অনান্য বিষয় প্রাধান্য পাবে। দ্বিতীয় খেলোয়াড় ঘুটির প্রাধান্য কে বেশি গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণ করার চেষ্টা করবে।

মাথায় রাখুন, অনেক রকমের গ্যামবিট ওপেনিং আছে। সমস্ত গ্যামবিট ওপেনিং ভালো নয়। আবার কিছু কিছু গ্যামবিট ওপেনিং খুব ভালো। সুতরাং বিভিন্ন গ্যামবিট ওপেনিং এর মধ্যে গুণগত পার্থক্য আছে। কতটা ঘুটির বিসর্জন দেওয়ার পরিবর্তে আপনি কতটা অনান্য জিনিস ফেরত পাচ্ছেন তার উপর গ্যামবিটের গুণগত মান নির্ভর করে।

গ্যামবিট করে ঘুটির গুণগত মান ও বিকাশে এগিয়ে থাকার ফলে প্রায় কিছুটা সময় খেলার রাশ নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়। অর্থাৎ ভাবুন, এমন একটা অবস্থা তৈরী হলো যাতে আপনি প্রতি চালে কিচু মারাত্মক থ্রেট তৈরী করছেন, এবং তা রক্ষণ করতেই প্রতিপক্ষের সময়/চাল নষ্ট হচ্ছে। এরকম ভাবে খেলার রাশ নিয়ন্ত্রণ করতে পারলে তাকে দাবার ভাষায় বলা হয়, আপনার initiative আছে।

initiative আপনার হাতে থাকলে আপনি খেলার রাশ নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। এরপর দুটো জিনিস হতে পারে। আপনার আক্রমণ সামলাতে না পেরে প্রতিপক্ষ কিছুক্ষণ পরে অনেক বেশি ঘুটি খোয়ালো, এতে আপনার সুবিধা হবে। অথবা ধরুন প্রতিপক্ষ কয়েক চাল ধরে সফলভাবে আপনার initiative সামলে নেবার পর একটা সাধারণ/স্বাভাবিক অবস্থায় খেলাটিকে নিয়ে গেলো। সেক্ষেত্রে অতিরিক্ত ঘুটি খেলার ফলাফল ঠিক করে দিতে পারে।

সুতরাং গামবিট খেলা মানে খেলার শুরুতেই অনেকটা ঝুকি নেওয়া। ঘুটির পরিমাপে পিছিয়ে আছেন মানে আপনি অকারণ উদ্দেশ্যহীন চাল খেলে খেলার সমতা বজায় রাখতে পারবেন না। আপনাকে আক্রমণ করতেই হবে।

অনেক বড় বড় দাবাড়ুদের মতে, নতুন খেলোয়াড়দের খেলায় উন্নতির জন্য গ্যামবিট খেলার অভিজ্ঞতা কাজে দেয়। আমি চাইবো আপনারাও গ্যামবিট খেলুন। এতে আপনাদের আক্রমণ এবং রক্ষণ, দুটোই শক্ত হবে। এবং কতটা অনান্য সুবিধার জন্য কতটা ঘুটি বিসর্জন দেওয়া যুক্তিযুক্ত, সেই সম্বন্ধে ধারণা হবে।

……………………………………………………………………………………………………

আমরা এতক্ষণ পর্যন্ত বিমূর্ত ধারণা নিয়ে কথা বললাম। এবার কিছু উদাহরণের সাহায্যে বিষয়টা বোঝার চেষ্টা করবো। উদাহরণ হিসাবে একটা গ্যামবিট ওপেনিং কে নেওয়া যাক। এই ওপেনিং গ্যামবিট এর নাম ড্যানিশ গ্যামবিট। ড্যানিশ গ্যামবিট এর শুরুর চালগুলো নিচে দিলাম।

1.e4 e5 2.d4 exd4 3.c3

lecture14.1

3…dxc3 4. Bc4 cxb2 5.Bxb2

lecture14.2

এটা ড্যানিশ গ্যামবিটের শুরুর অবস্থান। সাদা খেলার একদম শুরুতে দুটি বোড়ে বিসর্জন দিয়েছে। সুতরাং সাদার অন্য কোন রকম সুবিধা না থাকলে কম ঘুটি থাকার জন্য সাদা খেলাটি হেরে যাবে। কিন্তু এই অবস্থা থেকে কালোর জেতা সহজ নয়। আসলে সাদার অন্যরকম সুবিধা আছে। তা হলো ঘুটির বিকাশে এগিয়ে থাকা এবং কেন্দ্রের ভালো দখল। তাই দুটি বোড়ে কম থাকা সত্ত্বেও সাদার পজিশন খুব খারাপ নয়।

অপরপক্ষে, যেহেতু কালোর কেন্দ্রের দখল এবং ঘুটির বিকাশ খুব খারাপ তাই পরের কয়েকটি চালে কালোকে প্রচন্ড সতর্ক থাকা দরকার। নয়তো বিপর্জয় হওয়া খুব সহজ। কিভাবে বিপর্জয় হতে পারে তা পরের কয়েকটা খেলায় আমরা দেখবো।

প্রথম খেলাটিতে দেখবো কালো যদি ঘুটির বিকাশ বা কেন্দ্রের দখল ভুলে প্রতিপক্ষের বোড়ে খাওয়ায় সময় নষ্ট করে তাহলে কি হতে পারে।

5…Qg5 6.Nf3 Qxg2

lecture14.3

7.Rg1 Bb4+ 8.Ke2 Qh3 9.Bxf7+

lecture14.4

 

9...Kd8 (9...Kxf7 Ng5+ 10.K-moves Nxh3) 10.Bxg7 Ne7 11.Ng5 Qh4
12.Ne6# 1-0

lecture14.5

 

এবং কালোর রাজা বোর্ডের মাঝে কিস্তিমাত হয়ে গেছে। এই খেলাটি আজ থেকে বহুদিন আগে দুজন বিখ্যাত খেলোয়াড়ের একটা পুরনো খেলা থেকে নেওয়া। পুরো খেলাটি নিচে দিলাম। কোন pgnviewer [ যেমন wwwdotchesstempodotcom/pgnviewer] এ খেলাটি কপি-পেস্ট করলে চালগুলো দেখতে পাবেন। বা নিজে বোর্ড সাজিয়েও দেখতে পারেন।

[White “Henry Edward Bird”]
[Black “Emanuel Lasker”]
[Event “Blitz”]
[Date “1892.??.??”]

1.e4 e5 2.d4 exd4 3.c3 dxc3 4.Bc4 cxb2 5.Bxb2 Qg5 6.Nf3 Qxg2
7.Rg1 Bb4+ 8.Ke2 Qh3 9.Bxf7+ Kd8 10.Bxg7 Ne7 11.Ng5 Qh4
12.Ne6# 1-0

 

………………………………………………………

আরও একটা উদাহরণ নিচে দিলাম। এই খেলাটি একটু অন্যভাবে এগিয়েছে।

 

[Event "corres DDR/BRD"]
[Date "1990.??.??"]
[White "Joachim Bobber"]
[Black "S Albrecht"]
1. e4 e5 2. d4 exd4 3. c3 dxc3 4. Bc4 cxb2 5. Bxb2 Bb4+ 6. Kf1
Nf6 7. e5 d5 8. Bb5+ Bd7 9. Qd3 Qe7 10. Nf3 Bxb5 11. Qxb5+ c6
12. exf6 1-0

lecture14.6

 

সাদার সপ্তম চালের পর কালোর ঘোড়া আক্রান্ত। আক্রমণ প্রতি আক্রমণে কয়েক চাল খেলা চলার পর নিচের অবস্থান তৈরী হয়েছে।

 

 

lecture14.7 

 

কালো শেষ চালে সাদার মন্ত্রীকে আক্রমণ করেছে।

কিন্তু সাদাকে এখনই মন্ত্রী সরানোর দরকার নেই। সাদা কালোর ঘোড়া খেয়ে নিয়ে কালোর মন্ত্রী কে আক্রমণ করতে পারে। এবং বিনিময়ের পর সাদা একটা অতিরিক্ত ঘোড়া জিতে নেবে। এবং একটা অতিরিক্ত ঘুটি এবং ভালো আক্রমণাত্মক অবস্থান নিয়ে সাদা অনেক ভালো অবস্থায় থাকবে।

lecture14.8

Note: উপরে আমরা একটা বিশেষ ধরনের চাল দেখলাম। সাদার মন্ত্রী আক্রান্ত, কিন্তু সাদা তৎক্ষণাৎ মন্ত্রী না নিরাপদ অবস্থানে না সরিয়ে অন্য একটা চালের মাধ্যমে কালোর মন্ত্রী কে আক্রমণ করেছে। এই রকম ভাবে আক্রান্ত ঘুটিকে ঠিক পরের চালে না সরিয়ে অন্য কোন ঘুটির চালের মাধ্যমে প্রতিপক্ষের ঘুটি জিতে নেওয়া কে দাবার ভাষায় একটা পোশাকি নাম আছে। অরিজিনাল কথাটি জার্মান, zwischenzug. ইংরিজিতে বলা যায় in between move, বা বাংলায় বলা যায় অন্তর্বর্তী চাল। এই রকম চালের ব্যাপারে সতর্ক থাকুন।

………………………………………………………………..

তৃতীয় উদাহরণ। এই খেলায় কালো ভাবছে দুটি বোড়ে খাওয়া খুব বিপজ্জনক, কারণ এতে সাদার কেন্দ্রের দখল ও ঘুটির বিকাশ খুব দ্রুতগতিতে হয়, তাই কালোর পক্ষে খেলা সামলানো কঠিন। সেইজন্য কালো দ্বিতীয় বোড়ে খাওয়ার পর তৃতীয় বোড়ে খাওয়া থেকে বিরত থেকে নিজের ঘুটির বিকাশে মন দিয়েছে। খেলার চালগুলো নিচে দিলাম।

[Event "ENG"]
[Site "ENG"]
[Date "1912.??.??"]
[White "Essery"]
[Black "Warren"]

1. e4 e5 2. d4 exd4 3. c3 dxc3 4. Bc4 d6 5. Nxc3 Nf6 6. Nf3
Bg4 7. O-O Nc6 8. Bg5 Ne5 9. Nxe5 Bxd1 10. Bxf7+ Ke7 11. Nd5#
1-0
কালোর চতুর্থ চালের পরঃ কালো সাদার বোড়ে খাওয়ার বদলে নিজের ঘুটির বিকাশে ব্যস্ত
lecture14.9

lecture14.1.1

এরপর 8…Be7, 9…0-0 খেললে কালোর পজিশন ভালোই। কিন্তু তার বদলে কালো সাদার পিন হয়ে থাকা ঘোড়া কে আক্রমণ করতে গিয়েছিল। তার ফলাফল নিচে দেখতে পাবেন।

 

lecture14.1.4

 

lecture14.1.2

খেলার শেষ অবস্থান। সাদা মন্ত্রী বিসর্জন দিয়েছে, কিন্তু কালোর রাজার কিস্তিমাত হয়ে গেছে।

lecture14.1.3


ঘুটির বিকাশে পিছিয়ে থাকলে বা কেন্দ্রর দখল না থাকলে আপাতদৃষ্টিতে নিরীহ পজিশন ও বিপজ্জনক হতে পারে। একটা সামান্য ভুল চালের জন্য মুহুর্তের মধ্যে খেলায় পরাজয় স্বীকার করতে হতে পারে। এই জন্য গ্যামবিট অপেনিং এর বিরুদ্ধে খেলা বেশ কঠিন। তাই সতর্ক থাকুন।

 

…………………………………………

 

আমরা এতক্ষণে বুঝেছি শুধুমাত্র ঘুটির পরিমাপ ই সব নয়। সামান্য কম ঘুটির বদলে বিকাশে অনেক এগিয়ে থাকলে তা খুব সহজেই ঘুটির পরিপূরক হিসাবে কাজ করে।

এখন প্রশ্ন হলো, কতটা বিকাশের জন্য কতটা ঘুটি বিসর্জন দেওয়া যেতে পারে? এর কোন সহজ উত্তর নেই। তবে এই ব্যাপারে প্রচলিত রাশিয়ান উক্তির অনুবাদ এখানে দিয়ে আমরা এই লেকচার শেষ করবো।

A pawn is worth three tempi – অর্থাৎ, মোটামুটি তিনটি চালে এগিয়ে থাকলে তা একটা বোড়ের পরিপূরক হিসাবে কাজ করে।

তবে মাথায় রাখবেন, এটা কথার কথা, এবং অনেক অবস্থায় এই কথা খাটে না। আমরা পরের লেকচারে গ্যামবিট ওপেনিং এর বিরুদ্ধে কি ভাবে রক্ষণ সামলাতে হয় তা শিখবো।

Comments

comments

About the author

রাজীব মন্ডল

আমি একজন রসায়নের গ্রাজুয়েট স্টুডেন্ট, কলকাতার প্রেসিডেন্সী কলেজ থেকে স্নাতক ও কানপুর আই আই টি থেকে স্নাতকোত্তর পাঠক্রম শেষ করার পর বর্তমানে মার্কিন মুলুকে জৈব রসায়ন নিয়ে গবেষণারত। দাবা নিয়ে উৎসাহী। উতসাহবশত অনেক পড়াশুনা করেছি। স্কুল কলেজ জীবনে এক আধটা টুর্নামেন্ট খেলেছি, তবে সেগুলোকে খুব সিরিয়াস টুর্নামেন্ট বলে চলে না। তার বাইরে খেলা বলতে ইন্টারনেটে নিয়মিত খেলি এবং তার বাইরে চর্চা ও করি। তবে ইন্টারনেটের বাইরে খুব একটা খেলিনা, বা কোনো খেতাব নেই। পুরোটাই স্ব-শিক্ষা, কোনোদিন অন্য কারো কাছ থেকে তালিম নিইনি, তবে খেলা শেখার পথে বহু লোকের লেখা পড়েছি, যাদের কে আমার শিক্ষক বলা চলে, কারন তাদের ছাড়া খেলা শেখা আমার পক্ষে সম্ভবপর হতো না।

Leave a Reply